শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০১:২২ পূর্বাহ্ন৯ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

লাল বিকিনিতে চড়ছে পারদ

লাল বিকিনিতে চড়ছে পারদ

নাসরীন সুলতানাঃ ছুটির মরশুম। ভরা ঠাণ্ডায় বলিউডেও তাই অন্য উষ্ণতার আমেজ। আর সেই আমেজে নিজেকে মেলালেন বাঙালি অভিনেত্রী মৌনী।

কোচবিহারের মেয়ে মৌনী রায়। পড়াশুনা ছেড়ে ঝুঁকি নিয়েই বলিউডে স্ট্রাগল শুরু করেছিলেন। ছোটপর্দায় অভিনয়, একের পর এক রিয়্যালিটি শো পা করে আজ তিনি যথেষ্ট জনপ্রিয় মুখ।

কোচবিহারেই জন্ম মৌনীর। তাঁর দাদু শেখর চন্দ্র রায় একজন প্রখ্যাত থিয়েটার আর্টিস্ট ছিলেন, তাঁর মা মুক্তিও ছিলেন থিয়েটারের শিল্পী। বাবা অনিল রায় কাজ করতে কোচবিহার জেলা পরিষদে।

কোচবিহারের কেন্দ্রীয় বিদ্যালয়ে পড়াশোনা করেছেন মৌনী। এরপর পড়াশোনা করতে দিল্লি যান। বাবা-মায়ের ইচ্ছেতেই জামিয়া মিলিয়া ইসলামিয়ায় মাস কমিউনিকেশন পড়তে শুরু করেন তিনি। কিন্তু অভিনয়ের টানে মাঝপথেই পড়াশোনা ছেড়ে দেন।

সম্প্রতি অক্ষয় কুমারের সঙ্গে ‘গোল্ড’ ছবিতে অভিনয় করেছেন তিনি। এর আগে বহু কাজ করেছেন মৌনী। তাঁর প্রথম অভিনয় ‘কিঁউ কি সাস ভি কভি বহু থি’।

এরপর তিনি জারা নাচকে দিখাও তে করিশ্মা তন্না ও জেনিফার উইংগেটের সঙ্গে প্রথম সিজন জিতে নেন। তারপর কস্তূরী সিরিজে তাকে শিবানী রুপে দেখা যায়।

পতি পত্নী ওর তে গৌরব চোপড়ার সঙ্গে, অংশগ্রহন করেন। তিনি দো সাহেলিয়া-তে রূপ হিসেবে অভিনয় করেন। তবে দেব কি দেব মহাদেবে সতীর ভূমিকায় অভিনয় করে খ্যাতি অর্জন করেন৷ ২০১৫ সালে একতা কাপুরের অতিপ্রাকৃত সিরিজ নাগিনে শিবানীর ভূমিকায় তিনি বেশ জনপ্রিয় হয় ওঠেন।

ঝলক দিখলা যা-তেও অংশ নিয়েছেন তিনি। ছোটপর্দায় তাঁর সর্বশেষ কাজ নাগিন-৩।

শুধু অভিনয় নয়, ফ্যাশন সেন্স, চেহারা- সবেতেই মৌনী নিজেকে আপডেট রাখেন। আর তারই প্রমাণ মিলল নতুন কয়েকটি ছবিতে।

বুধবার অর্থাৎ ২৫ ডিসেম্বরের দিনেই সেই ছবি পোস্ট করেছেন মৌনী রায়। যেখা তিনি বিকিনি পরে বিচে কিছু ছবি পোস্ট করেছে ইন্সটাগ্রামে। তাঁর পরণে লাল বিকিনি, আর চোখে সানগ্লাস। নানা পোজে ছবি পোস্ট করেছেন তিনি।

স্বাভাবিকভাবেই তাঁর নতুন ছবিগুলিতে হু হু করে লাইক পড়তে শুরু করেছে। মাত্র ৩০ মিনিটে তাঁর লাইকের সংখ্যা প্রায় ৫০,০০০-এর কাছাকাছি।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
©জাগো বাংলা.নিউজ কর্তৃক সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT