শনিবার, ২২ ফেব্রুয়ারী ২০২০, ০১:১৯ পূর্বাহ্ন৯ই ফাল্গুন, ১৪২৬ বঙ্গাব্দ

হিন্দুত্ব আর জাতীয়তাবাদের মতো বিষয়ে ভারতে ভুয়া খবর ছড়াচ্ছে: বিবিসি’র গবেষণা

হিন্দুত্ব আর জাতীয়তাবাদের মতো বিষয়ে ভারতে ভুয়া খবর ছড়াচ্ছে: বিবিসি’র গবেষণা

কিছুদিন আগে একটা মেসেজ হোয়াটসঅ্যাপে বেশ ঘোরাঘুরি করছিল। বার্তাটা ছিল এরকম: “সব ভারতীয়কে অভিনন্দন! ইউনেস্কো ভারতীয় মুদ্রাকে সর্বশ্রেষ্ঠ কারেন্সি বলে ঘোষণা করেছে। এটা প্রত্যেক ভারতীয়র জন্য গর্বের বিষয়।”

একটু ভাবলেই বোঝা যায় যে এই মেসেজটা ছিল ভুয়া।

কিন্তু তা সত্ত্বেও বহু মানুষ এটাকে বিশ্বাস করে ফরোয়ার্ড করেছেন চেনা পরিচিতদের কাছে।

এদের মধ্যে একটা মানসিকতা কাজ করেছে, যে তারা রাষ্ট্র নির্মানের কাজে বোধহয় সাহায্য করছে এই বার্তা দিকে দিকে ছড়িয়ে দিয়ে।

বিবিসি-র একটি গবেষণায় দেখা গেছে মানুষ রাষ্ট্র নির্মানের ভাবনা নিয়েই জাতীয়তাবাদী নানা ভুয়ো মেসেজ শেয়ার করছেন।

ভারত, কেনিয়া আর নাইজেরিয়ায় এই গবেষণা চালিয়েছে বিবিসি। এনক্রিপ্টেড মেসেজিং অ্যাপের মাধ্যমে মানুষ কী ধরণের ভুয়ো খবর ছড়াচ্ছেন, সেটা বোঝার উদ্দেশ্যেই এই গবেষণা। দেখা যাচ্ছে যে ভুয়ো খবর ছড়ানোর পেছনে মানুষের চিন্তাভাবনার একটা বড় ভূমিকা রয়েছে।

‘বিয়ন্ড ফেক নিউজ’ নামে বিবিসির এই গবেষণায় সাহায্য করার জন্য বেশ কিছু মোবাইল ব্যবহারকারী তাদের ফোনের এক্সেস দিয়েছিলেন আমাদের।

বিবিসি ওয়ার্ল্ড সার্ভিসের অডিয়েন্স রিসার্চ বিভাগের প্রধান ডক্টর শান্তনু চক্রবর্তীর কথায়, “এই গবেষণায় আমরা এটাই বুঝতে চেষ্টা করেছি, যে ব্যক্তি ভুয়ো খবর ছড়িয়ে পড়া নিয়ে চিন্তান্বিত হওয়ার দাবী করছেন, সেই ব্যক্তিই আবার ভুয়ো খবর ছড়িয়েও দিচ্ছেন।”

ভারতের অনেক মানুষই সেই সব মেসেজ শেয়ার করার আগে কয়েকবার চিন্তা করেন, যা থেকে হিংসা ছড়াতে পারে।

কিন্তু সেই মানুষরাই আবার নানা ধরণের জাতীয়তাবাদী মেসেজ না ভেবেই শেয়ার করে দিচ্ছেন।

শেয়ার করুন
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  
  •  





themesba-zoom1715152249
©জাগো বাংলা.নিউজ কর্তৃক সর্বসত্ত্ব সংরক্ষিত।
Developed By: Nagorik IT